মেহেরপুরে হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিনিধি:
সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতাসহ সকল প্রকার অন্যায়ের রিরুদ্ধে এবং সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে সারা দেশে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে মানবতার কল্যাণে নিবেদিত আন্দোলন হেযবুত তওহীদ। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল মেহেরপুর জেলার বামন্দীতে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের মূল প্রতিপাদ্য ছিল ‘ধর্মের অপব্যবহার প্রগতির অন্তরায়’। এতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন মাটি শিল্প গোষ্ঠীর সদস্যরা।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম, গাংনী উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন মেম্বার, শহিদুল ইসলাম বিদ্যু, ইউনুস আলী, আবুল বাসার, মো. দেলোয়ার, মাটি শিল্প গোষ্ঠীর কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য নিজাম উদ্দীন, হেযবুত তওহীদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুয্যামান মনির, কুষ্টিয়া জেলা হেযবুত তওহীদের সভাপতি তানভীর আহম্মেদ, মেহেরপুর জেলা হেযবুত তওহীদের সভাপতি সাহারুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জাহিদ মাহমুদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আ. সামাদ প্রমুখ।
অনুষ্ঠানের মুখ্য আলোচকের বক্তব্যে নিজাম উদ্দীন বলেন, আমরা মনে করি শান্তির জন্য এসেছে ধর্ম আর মানবতার জন্য সংস্কৃতি। দেশে সুস্থধারার সংস্কৃতি চর্চায় দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে মাটি শিল্প গোষ্ঠী। ধর্ম কখনওই সংস্কৃতিকে অস্বীকার করে না। বরং ধর্ম অশ্লীলতা আর অন্যায়কে নিষিদ্ধ করেছে। তাই সুস্থধারার সংস্কৃতি চার্চায় আমাদের এই পথ চলা। তিনি আরও বলেন, আমাদের গান-কবিতায় আমরা দেশ ও দেশের মানুষের কথা বলি। আমাদের গানগুলো সমাজের সকল প্রকার অন্যায়ের বিরুদ্ধে শক্তিশালী কণ্ঠস্বর হিসেবে ভূমিকা রাখবে বলে আমরা আশা করি। সুরের মাধ্যমে আমরা মানবতার জয়গান গেয়ে চলেছি। আপনারা আমাদের গানের কথাগুলো মন দিয়ে শুনবেন এবং আত্মা দিয়ে উপলব্ধি করবেন। মানবতার শান্তির জন্য আমাদের পদক্ষেপগুলোকে সর্বাত্মক সহযোগীতা করবেন- এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি।
অনুষ্ঠানে প্রথমেই সঙ্গীত পরিবেশন করেন জেলার লালন শিল্পীবৃন্দ। এরপর একে একে সঙ্গীত পরিবেশন করেন মাটি সাংস্কিৃতিক শিল্পীগোষ্ঠীর শিল্পীরা।

জনপ্রিয় পোস্টসমূহ