রাজধানীর মতিঝিলে মাননীয় এমামের প্রথম বক্তব্য

আলোচনা সভায় উপস্থিত বাম থেকে মঞ্চে উপবিষ্ট হেযবুত তওহীদের আমীর জনাব মসীহ উর রহমান, হাজী মিজানুর রহমান, সাব্বির হোসেন, আবুল কাশেম, মো. শাহীনুর রহমান (শাহীন), হাসান উদ্দিন জামাল, মো. নাসির উদ্দিন, মোসারফ হোসেন, অঞ্জন কুমার দাস ও শাজাহান। নিচের ছবিতে আলোচনা সভায় আগত অতিথিবৃন্দ ও স্থানীয় জনতা।
আলোচনা সভায় উপস্থিত বাম থেকে মঞ্চে উপবিষ্ট হেযবুত তওহীদের আমীর জনাব মসীহ উর রহমান, হাজী মিজানুর রহমান, সাব্বির হোসেন, আবুল কাশেম, মো. শাহীনুর রহমান (শাহীন), হাসান উদ্দিন জামাল, মো. নাসির উদ্দিন, মোসারফ হোসেন, অঞ্জন কুমার দাস ও শাজাহান। নিচের ছবিতে আলোচনা সভায় আগত অতিথিবৃন্দ ও স্থানীয় জনতা।

গত ২৩ নভেম্বর ২০১৪ সন্ধ্যায় রাজধানী মতিঝিলের দৈনিক বাংলা মোড়ে ধর্মব্যবসা, ধর্ম নিয়ে অপরাজনীতি ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ‘এক জাতি এক দেশ ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশ’ শীর্ষক একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভাটি আয়োজন করে মানবতার কল্যাণে নিয়োজিত ও যামানার এমাম মোহাম্মদ বায়াজীদ খান পন্নী প্রতিষ্ঠিত আন্দোলন হেযবুত তওহীদ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল কাসেম। তিনি বলেন, ‘ইসলামে জঙ্গিবাদের কোন স্থান নেই। ধর্ম এসেছে মানবতার কল্যাণে। কিন্তু একশ্রেণির ধর্মব্যবসায়ীরা ধর্মকে অকল্যাণের পথে চালিত করছে। ১৯৭১ সালে আমরা মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে একটি ঐক্যবদ্ধ ও সুখী-সমৃদ্ধ দেশ গঠন করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু ধর্মব্যবসায়ীদের অপপ্রচার ও অপব্যাখ্যার কারণে মানুষ আজ নানা মতে বিভক্ত হয়ে গেছে। এমতাবস্থায় জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করতে হেযবুত তওহীদ জাতিকে একতাবদ্ধ করতে যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তার সাথে আমরা একাত্মতা ঘোষণা করছি।’
অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন হেযবুত তওহীদের আমীর জনাব মসীহ উর রহমান। জনাব মসীহ উর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, ‘জঙ্গিবাদ বর্তমান পৃথিবীতে একটি ভয়াবহ সমস্যা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। মূলত ধর্মের অপব্যাখ্যা থেকেই ধর্মীয় জঙ্গিবাদের জন্ম। কিন্তু কোন ধর্মেই জঙ্গিবাদের মত উগ্রতাকে স্বীকার করে না। সুতরাং যারা ধর্মের নাম দিয়ে মানুষের জান-মালের ক্ষতি করে কোন ধর্মেই তাদের স্থান নেই, তারা ধর্মেরও কেউ নয়। কিন্তু যারা জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত তারা মনে-প্রাণে বিশ্বাস করে যে, তারা যা করছে তা ধর্মেরই কাজ। কিন্তু নিরীহ মানুষ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদেরকে হত্যা করা, রাষ্ট্রীয় সম্পদের ক্ষতি করা কোনভাবেই ধর্মের কাজ নয়, সেটা তাদেরকে বোঝাতে হবে। সঠিক শিক্ষার অভাবে এই ভ্রান্ত পথকেই জঙ্গিরা তাদের জীবনের আদর্শ হিসেবে গ্রহণ করেছে। তাই এদেরকে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনতে হলে শুধুমাত্র বলপ্রয়োগই যথেষ্ট নয়। বলপ্রয়োগ করলে তারা আরো বেপরোয়া হয়ে যেতে পারে। তাদেরকে এই আদর্শ থেকে ফিরিয়ে আনতে আদর্শিকভাবেই মোকাবেলা করতে হবে। সেই আদর্শিক লড়াই সম্ভব একমাত্র ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা দিয়েই। আর সেই প্রকৃত শিক্ষা রয়েছে হেযবুত তওহীদের কাছে। জঙ্গিবাদ নির্মূলে সঠিক করণীয় সম্পর্কে ইতোমধ্যে আমরা আমাদের প্রস্তাবনা উত্থাপন করেছি। আমরা বিশ্বাস করি আমাদের প্রস্তাবিত পথ গ্রহণ করলে জঙ্গিবাদ সমস্যা নির্মূল করা সম্ভব।’
অনুষ্ঠানের শুরুতে ‘ধর্মব্যবসা ও ধর্ম নিয়ে অপরাজনীতির ইতিবৃত্ত’ ও ‘নারীর মর্যাদা’ শীর্ষক প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। এছাড়াও অনুষ্ঠানের শেষে স্থানীয় আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ৫ই মে হেফাজতের তাণ্ডবের উপর নির্মিত একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠানটির সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন ঢাকা মহানগর যুবলীগ (দক্ষিণ) এর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জনাব আলহাজ্ব এ,কে,এম মুমিনুল হক সাঈদ। এতে সর্বস্তরের জনগণ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাজ্বী মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেন, সদস্য আব্দুর রহমান, প্রচার সম্পাদক আবুল কাসেম মন্টু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক হাসান উদ্দিন জামাল, ওয়াসা ইউনিট যুবলীগের সভাপতি রুবেল, সাধারণ সম্পাদক মো. লাভলু, যুবলীগের দৈনিক বাংলা ইউনিটের সভাপতি ছলেমান মিজি, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাতেন, যুবলীগ দিলকুশা ইউনিটের সভাপতি মো. মহসিন, সাধারণ সম্পাদক মো. আলম, যুবলীগের মতিঝিল ইউনিটের সভাপতি আহসান উল্লাহ হাসান, সাধারণ সম্পাদক মো. সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জু, ফকিরাপুল বাজার যুবলীগ ইউনিটের সভাপতি শাহাদাত হোসেন বাপ্পী, সাধারণ সম্পাদক মো. ইমরান হোসেন, যুবলীগ আরামবাগ ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ, ওয়ারী ইউনিট যুবলীগের সভাপতি বশির আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মো. ইউসুফ।

আনুষ্ঠানে আগত বক্তাগণ

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন হেযবুত তওহীদের মাননীয় এমাম জনাব হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন হেযবুত তওহীদের মাননীয় এমাম জনাব হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম।

বক্তব্য রাখছেন মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক হাসান উদ্দিন জামাল
বক্তব্য রাখছেন মতিঝিল থানা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক হাসান উদ্দিন জামাল

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন হেযবুত তওহীদের আমীর জনাব মসীহ উর রহমান।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন হেযবুত তওহীদের আমীর জনাব মসীহ উর রহমান।

 

অনুষ্ঠান সঞ্চালন

সঞ্চালনা করেন হেযবুত তওহীদের সদস্য আরিফ মো. আলী আহসান।
সঞ্চালনা করেন হেযবুত তওহীদের সদস্য আরিফ মো. আলী আহসান।

 সঞ্চালনা করেন যামানার এমামের অনুসারী ও হেযবুত তওহীদের সদস্য আরিফ মো. আলী আহসান।
সঞ্চালনা করেন যামানার এমামের অনুসারী ও হেযবুত তওহীদের সদস্য আরিফ মো. আলী আহসান।

 

অনুষ্ঠানস্থলে প্রকাশনা স্টলের ছবি

অনুষ্ঠানস্থলে প্রকাশনা স্টলের ছবি
অনুষ্ঠানস্থলে প্রকাশনা স্টলের ছবি

অনুষ্ঠানস্থলে প্রকাশনা স্টলে হেযবুত তওহীদের মাননীয় এমাম জনাব হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম
অনুষ্ঠানস্থলে প্রকাশনা স্টলে হেযবুত তওহীদের মাননীয় এমাম জনাব হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম

অনুষ্ঠানে আগত অন্যান্য অতিথিবৃন্দ

অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবর্গের একাংশ
অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবর্গের একাংশ

অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবর্গের একাংশ
অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবর্গের একাংশ

অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবর্গের একাংশ
অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবর্গের একাংশ

অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবর্গের একাংশ
অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিবর্গের একাংশ

 প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শণী

প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে উপস্থি অতিথিবৃন্দ
প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে উপস্থি অতিথিবৃন্দ

প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে উপস্থি অতিথিবৃন্দ
প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে উপস্থি অতিথিবৃন্দ

প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে উপস্থি অতিথিবৃন্দ
প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে উপস্থি অতিথিবৃন্দ

প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে উপস্থি অতিথিবৃন্দ
প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীতে উপস্থি অতিথিবৃন্দ

 

লেখাটি শেয়ার করুন আপনার প্রিয়জনের সাথে

Share on email
Email
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on skype
Skype
Share on whatsapp
WhatsApp
জনপ্রিয় পোস্টসমূহ