চুয়াডাঙ্গার মোমেনপুরে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে ধর্মসভা

২৩ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির লক্ষ্যে দেশব্যাপী কাজ করে যাচ্ছে অরাজনৈতিক আন্দোলন হেযবুত তওহীদ। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল সোমবার চুয়াডাঙ্গার মুমিনপুরে অনুষ্ঠিত হয়েছে জঙ্গিবাদবিরোধী এক বিশাল ওয়াজ মাহফিল। “সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে শীতকালীন ধর্মসভা (ওয়াজ মাহফিল)” শিরোনামে উক্ত ওয়াজ মাহফিলে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন হেযবুত তওহীদের এমাম হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম। গতকাল বাদ মাগরেব মোমিনপুর উপজেলার সরিষাডাঙা বাউল একাডেমির মাঠে হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে উক্ত ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
গতকাল সন্ধ্যার আগে থেকেই স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ দলে দলে মাহফিলস্থলে যোগদান করতে থাকে। মাগরেবের পর প্রধান বক্তা তার বক্তব্য শুরু করার খানিক বাদেই পুরো মাঠ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে ওঠে। হাজারো জনতার উপস্থিতিতে দীর্ঘ প্রায় তিন ঘণ্টা একটানা বক্তব্য রাখেন হেযবুত তওহীদের এমাম হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম। এসময় তিনি বর্তমান মুসলিম জাতির করুণ অবস্থার চিত্র তুলে ধরেন এবং এক সময় বিশ্বের নেতৃত্ব দানকারী এই জাতির আজকের এই পরিণতির কারণ তুলে ধরেন। পাশাপাশি এই অবস্থা থেকে উত্তরণের পথও তুলে ধরেন হেযবুত তওহীদের এমাম। তিনি বলেন, “আজকে মুসলিম জাতিকে এই লানতপূর্ণ জীবন থেকে বের হয়ে আসতে হলে হাজার বছর ধরে বিকৃতির আড়ালে পড়ে থাকা যে সত্যিকার ইসলাম, যে ইসলাম নিয়ে রসুল (স.) পৃথিবীতে এসেছিলেন, তার ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।” তিনি সমগ্র মানবজাতিকে এক জাতি অভিহিত করে বলেন, “সমস্ত মানবজাতিকে নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব ছিল মুসলিম জাতির। আজকে ইসলামের নাম করে অপর ধর্মের বেসামরিক, নিরস্ত্র মানুষের উপর যে হামলা চালানো হয় তা কখনো প্রকৃত ইসলামের শিক্ষা হতে পারে না।”

জঙ্গিবাদ পশ্চিমা সাম্রাজ্যবাদীদের হাতে সৃষ্টি বলে এসময় মন্তব্য করেন হেযবুত তওহীদের এমাম হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম। তিনি বলেন, সমস্ত পৃথিবীতে ইসলামকে ‘সন্ত্রাসের ধর্ম’ হিসেবে পরিচিত করার জন্য অত্যন্ত সুকৌশলে তারা এই জঙ্গিবাদের জন্ম দিয়েছে। মুসলিম বিশ্বের তরুণ ও যুব সমাজ তাদের পাতা সেই ফাঁদে পা দিয়ে বর্তমানে একদিকে নিজেদের জীবনকে ধ্বংস করছে, অন্যদিকে পবিত্র ধর্ম ইসলামকে কলঙ্কিত করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
মাহফিলে আরো বক্তব্য রাখেন মাওলানা আব্দুর রহমান, চুয়াডাঙ্গা জেলা হেযবুত তওহীদের সভাপতি তানভীর আহমেদ প্রমুখ। বক্তারা জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানান। তারা বলেন, জঙ্গিবাদ বর্তমানে সারা বিশ্বে সবচেয়ে বড় সংকট হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। বাংলাদেশও এই সংকটের বাইরে নয়। জঙ্গিবাদকে মোকাবেলায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতার পাশাপাশি জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আদর্শিক মোকাবেলা করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তারা। তারা বলেন, মানুষের কাছে ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা পৌঁছে দিতে হবে। ইসলামে প্রকৃত রূপ যদি মানুষের সামনে তুলে ধরা যায়, তবে তারা বিপথগামীদের দ্বারা প্রভাবিত হবে না বলে অভিমত ব্যক্ত করেন তারা।
মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন মোমামিনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক জোর্য়দার। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন আরও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান ও শেখ মনিরুল ইসলাম প্রমুখ, চুয়াডাঙ্গা জেলা হেযবুত তওহীদের সভাপতি তানভীর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক এস এম আনোয়ার হুদা, স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব মাওলানা আব্দুর রহমান প্রমুখ।

জনপ্রিয় পোস্টসমূহ