রংপুরে জঙ্গিবাদ নির্মূলে আলোচনা সভা

DSC_0054

সকল প্রকার সন্ত্রাসবাদ ও অন্যায়-অবিচার নিরসনে যামানার এমাম পথ দেখিয়েছেন’ বলে মন্তব্য করেছেন দৈনিক দেশেরপত্রের উপদেষ্টা জনাব মসীহ উর রহমান।  দৈনিক দেশেরপত্রের উদ্যেগে রংপুর বিভাগীয় শহরের পৌরবাজারস্থ টাউনহলে অনুষ্ঠিত একটি সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন।
গত ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৩ রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে দৈনিক দেশেরপত্রের উদ্যোগে দেশের সকল গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব এবং আইনশৃংখলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে এক প্রান-প্রাচুর্যপূর্ণ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারের প্রতিপাদ্য ছিল “জঙ্গিবাদ তথা যাবতীয় সন্ত্রাসবাদ দমনে আমাদের প্রস্তাবনা” এবং “অন্যায়, অশান্তি দূরীকরণে সিস্টেম পরিবর্তনের বিকল্প নেই”। তারই ধারাবাহিকতায় জাতিকে অন্যায় অশান্তির বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ করার উদ্দেশ্যে দেশেরপত্রের উদ্যোগে লক্ষীপুর, জয়পুরহাট, পঞ্চগড়, টাঙ্গাঈল ও ঠাকুরগাঁও জেলায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানগুলোতে উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মী, বিচারক, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ, প্রভাষক, প্রধান শিক্ষক, প্রশাসনিক কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বার, পৌর কমিশনার, ওয়ার্ড কমিশনার, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব, চিকিৎসক, ব্যবসায়ী, শিল্প-উদ্যোক্তা, আইনজীবী, বুদ্ধিজীবী, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ সর্বস্তরের মানুষ দৈনিক দেশেরপত্রের এই উদ্যোগকে অভিন্দন জানায়। রংপুর বিভাগীয় ব্যুরোপ্রধান আশেক মাহমুদের সভাপতিত্বে রংপুরে অনুষ্ঠিত সেমিনারে ‘জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ’ এর কারণে সৃষ্ট নানাবিধ সমস্যা এবং তা থেকে উত্তরণের উপায় নিয়ে আলোচনা করা হয়। উদ্বোধনী বক্তব্যে আশেক মাহমুদ বলেন, “বর্তমান সমাজে একজন মানুষ আর একজনের পিছনে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকে। এ কারণে নিজেদের মধ্যে দয়ামায়া, ভালোবাসা, সহযোগিতা ইত্যাদি সদগুণগুলো হারিয়ে যাচ্ছে। আইন করে শাস্তি দিয়ে মায়া-মমতা, ভালোবাসা, ঐক্য কখনও আনা যায় না। ঐক্য, ভালোবাসা, ভ্রাতৃত্ব, মায়ামমতা, এগুলো জাতির সম্পদ । যে জাতি থেকে এ গুণগুলো হারিয়ে যায়, সেই জাতি দৈন্যদশায় পড়ে। এই সম্পদ আবার ফিরিয়ে আনার উপায় আল্লাহ আমাদেরকে দিয়েছেন।”
প্রধান অতিথির বক্তব্যে দৈনিক দেশেরপত্রের উপদেষ্টা মসীহ উর রহমান বলেন, “পৃথিবীর সর্বত্র আজ অন্যায়, অবিচার, ঘুষ, রাহজানি, হত্যা, নির্যাতন, ভেজাল, দুর্নীতি চরম পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে। আজ আমরা পারমাণবিক আত্মহত্যার মুখোমুখী এসে উপনীত হয়েছি। সমাজের এই অবস্থা থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য, সবাই কাজ করে যাচ্ছে কিন্তু কোন লাভ হচ্ছে না। আজ আমরা শান্তির আশায় ইউরোপ আমেরিকা দৌঁড়াচ্ছি, কিন্তু, শান্তি পাচ্ছি না”। তিনি আরও বলেন, “শান্তির জন্যে আমরা বিগত কয়েক শতাব্দী ধরে একটার পর একটা জীবনব্যবস্থা পরিবর্তন করেছি, কিন্তু আমাদের জীবনে শান্তি আসে নি। আমাদের কাছে এই অশান্তি থেকে, এই অন্যায় থেকে, এই জুলুম থেকে মুক্তির একটি পথ আছে। সেটা হচ্ছে দাজ্জালের তৈরী স্রষ্টাহীন বস্তুবাদী সিস্টেমকে পরিত্যাগ করে আল্লাহর দেওয়া অপরূপ, নিখুঁত ভারসাম্যপূর্ণ সিস্টেমটি গ্রহণ করতে হবে। একমাত্র আল্লাহর দেয়া সিস্টেমই পারে সমাজের অন্যায় দূর করতে।”
মিঠাপুকুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান, আব্দুল হালীম মন্ডল দেশেরপত্রের এই কার্যক্রমকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, “জাতির দুর্বিসহ মুহূর্তে দেশেরপত্র একটি গুরুত্বপূর্র্ণ উদ্যোগ নিয়েছে । এই সেমিনারের কথাগুলো সবাইকে মেনে চলা উচিত। রাজনৈতিক, প্রশাসনিক, সাংবাদিক ও ব্যবসায়ী এই চার শ্রেণীর মানুষ মানবতার কল্যাণে এগিয়ে আসলে জাতি মুক্তি পাবে।”
সানোয়ারা ডেইরী ফুড এর রংপুর বিভাগীয় মার্কেটিং অফিসার মোঃ নুরুজ্জামান বলেন, “আজকের আলোচনার বিষয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা সবাই নিজেকে বড় মনে করি। আমরা ভাবি যে আমরা সবাই শিক্ষক, বাকী সকলেই আমাদের ছাত্র। ইসলাম নিয়ে অনেক মত রয়েছে, সে কারণে আমরা সিন্ধান্ত নিতে পারি না আমরা কোনটা মানবো। প্রকৃত ইসলামের কথা জানানোর জন্যই দেশেরপত্র আমাদের সামনে এসেছে।”
দেশেরপত্রের প্রধান বার্তা সম্পাদক এস এম সামসুল হুদা বলেন, “বর্তমানে এটা প্রমাণিত যে শুধুমাত্র বুলেট বোমা দিয়ে, গ্রেফতার-রিমান্ড দিয়ে অর্থাৎ শক্তি প্রয়োগে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে বিজয় অর্জন সম্ভব নয়। কিছুদিন আগে বাংলাদেশ পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেছেন যে, আদর্শ দিয়ে আদর্শ মোকাবেলা করতে হবে। আজ থেকে চার বছর আগে যামানার এমাম জনাব মোহাম্মদ বায়াজীদ খান পন্নী সরকারের কাছে প্রস্তাব দিয়েছিলেন যে, শুধুমাত্র শক্তি প্রয়োগে কখনই সফলতা আসবে না।” তিনি বলেন, “কোরআন-হাদিস থেকে ভুল বোঝানোর কারণেই মানুষ জঙ্গি হয়। তারা মনে করে এই পথেই জান্নাত। এই বিশ্বাসে তারা জীবন পর্যন্ত বিলিয়ে দেয়। এখন যদি কোরআন-হাদিস থেকে যুক্তি দিয়ে তাদের বোঝানো যায় যে, এটা ভুল পথ, এই পথে তারা দুনিয়া এবং জান্নাত দুটিই হারাচ্ছে তবে নিশ্চয়ই তারা সে পথ ত্যাগ করবে। বর্তমানের আলেমরা নিজেরাই ধর্মবিক্রীর মত একটি হারাম কাজে লিপ্ত আছেন। যারা নিজেরাই ভুল পথে আছে তাদের সাহায্য নিয়ে জঙ্গিদের ভুল পথ থেকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব নয়। জঙ্গিদের বোঝানোর জন্য এমন মানুষ দরকার যারা পার্থিব কিছুর বিনিময়ে এসলাম প্রচার করেন না এবং সত্য পথের উপর প্রতিষ্ঠিত। সেই সত্যনিষ্ঠা আল্লাহ যামানার এমাম জনাব মোহাম্মদ বায়াজীদ খান পন্নীকে দান করেছেন।’
দেশেরপত্রের রাজশাহী বিভাগীয় সার্কুলেশন ম্যানেজার মো: মনিরুজ্জামান বলেন, ‘যে সিস্টেম একজন ব্যবসায়ীকে ভেজাল মেশাতে প্রলুব্ধ করে, মানুষকে জড়বাদী ও স্রষ্টাবিমুখ করে সেই সিস্টেমের পরিবর্তন করে আল্লাহর দেওয়া সিস্টেমে পুনরায় ফিরে গিয়ে আমাদের সমাজের যাবতীয় অন্যায় ও অশান্তি দূর করা এখন সময়ের দাবি।’ দেশেরপত্রের পঞ্চগড় অঞ্চলের ব্যুরো প্রধান মোঃ রবিউল এসলাম বলেন, ‘আলো জ্বালালে যেমন অন্ধকার দূরীভত হয়, তেমনি প্রকৃত সত্য প্রকাশ হলে সমাজের সকল অন্যায়-অত্যাচার, ঘুষ, দুর্নীতি, চুরি, ডাকাতি, রাহাজানি দূর হবে। তাই বর্তমান প্রেক্ষাপটে আমাদের সকল সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে এই বস্তুবাদী সিস্টেমকে পরিত্যাগ করে আল্লাহর দেওয়া অপরূপ, নিখুঁত সিস্টেমটি গ্রহণ করতে হবে।’ দেশেরপত্রের সাব এডিটর শেখ মনিরুল এসলাম সমাজের সকল নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের এই বস্তুবাদী শোষণমূলক সিস্টেম পরিবর্তনে প্রয়োজনীয় গণসচেনতা সৃষ্টির আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে মানবতার কল্যাণে সত্যের প্রকাশে দৈনিক দেশেরপত্রের গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রম এবং জঙ্গিবাদের উত্থান ও উত্তরণের উপায়ের ওপর নির্মিত সংক্ষিপ্ত ভিডিওচিত্র এবং দেশেরপত্রের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক রুফায়দাহ পন্নীর ধারণকৃত বক্তব্য প্রদর্শন করা হয়। এছাড়াও একটা ভিডিও চিত্রের মাধ্যমে যামানার এমামের পরিচিতি তুলে ধরা হয়। যামানার এমামের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে সঙ্গীত পরিবেশন করেন রংপুরের বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী নাজমুল আলম শান্তু। দেশেরপত্রের বিশেষ প্রতিনিধি শামসুজ্জামান মিলনের সঞ্চালনায় অত্যন্ত প্রাণবন্ত ছিল পুরো মিলনায়তন। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিবর্গের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন রংপুর আই.ই.টি অধ্যক্ষ আব্দুল হান্নান, বাংলার চোখ-এর সভাপতি অ্যাড.তানভীরুজ্জামান, সহকারী তথ্য অফিসার মো: আলমগীর কবির, রংপুর পৌর জা.পা. সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. সালাহউদ্দিন কাদেরী, জেলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মো: আব্দুল ওয়াদুদ, বদরগঞ্জ ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি আবুল কালাম, মিঠাপুকুর বি.এন.পি.র সাধারণ সম্পাদক মো: হাবিবুর রহমান, দৈনিক শক্তির বিভাগীয় প্রতিনিধি মো: আহসান হাবীব, মাহীগঞ্জ কলেজের প্রভাষক জাহিদ হাসান শিশির, মোহনা টিভির রংপুর ব্যুরো প্রধান মো: শফিউল করিম শফিক, আর.টি.ভি প্রতিনিধি আবুল কাশেম, জেলা পিকআপ শ্রমিক সমিতির সভাপতি খায়রুজ্জামান, বৈশাখী টিভির প্রতিনিধি আফতাব হোসেন, রিক্সাচালক ইউনিয়ন সভাপতি আবু তালেব, স্থানীয় কাউন্সিলর মোসা: নাজমুন্নাহার, আঞ্জুমান আরা বেগম, মোসা: দিলারা বেগম, জাতীয় ছাত্র সমাজ (মহানগর) সভাপতি এস এম সাইফুল ইসলাম, ডি.এস.বি. সদস্য মো: মোফাজ্জল হোসেন, সরকারী ক্যান্ট. পা. স্কুল এর সহকারী শিক্ষক ধনঞ্জয় কুমার প্রমুখ।

লেখাটি শেয়ার করুন আপনার প্রিয়জনের সাথে

Share on email
Email
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on skype
Skype
Share on whatsapp
WhatsApp
জনপ্রিয় পোস্টসমূহ