ঠাকুরগাঁওয়ে উপজেলা পরিষদে জঙ্গিবাদ বিরোধী আলোচনা সভা

মঞ্চে উপবিষ্ট আছেন (বাম থেকে) দৈনিক দেশেরপত্রের প্রধান বার্তা সম্পাদক- এস.এম. সামসুল হুদা, উপদেষ্টা- মসীহ উর রহমান, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চেয়ারম্যান সুলতান উল ফেরদৌস (নম্র চৌধুরী), রাণীশংকৈল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মিজানুর রহমান ও দৈনিক দেশেরপত্রের বিভাগীয় ব্যুরো চীফ আশেক মাহামুদ।
মঞ্চে উপবিষ্ট আছেন (বাম থেকে) দৈনিক দেশেরপত্রের প্রধান বার্তা সম্পাদক- এস.এম. সামসুল হুদা, উপদেষ্টা- মসীহ উর রহমান, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চেয়ারম্যান সুলতান উল ফেরদৌস (নম্র চৌধুরী), রাণীশংকৈল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মিজানুর রহমান ও দৈনিক দেশেরপত্রের বিভাগীয় ব্যুরো চীফ আশেক মাহামুদ।

 রবিবার সকাল ১০ দৈনিক দেশেরপত্রের উদ্যোগে ঠাকুরগাঁও উপজেলা পরিষদ ভবনে “জঙ্গিবাদ তথা যাবতীয় সন্ত্রাস দমনে আমাদের প্রস্তাবনা” এবং “অন্যায় অশান্তি দূরীকরণে সিস্টেম পরিবর্তনের বিকল্প নেই” শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চেয়ারম্যান জনাব সুলতান উল ফেরদৌস (নম্র চৌধুরী), রাণীশংকৈল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মিজানুর রহমান, এ্যাডভোকেট আব্দুল করিম (সভাপতি, জাতীয় পাটি, ঠাকুরগাঁও), দৈনিক দেশেরপত্রের বার্তা সম্পাদক এসএস সামসুল হুদা, দৈনিক দেশেরপত্রের উপদেষ্টা মসীহ উর রহমান, বিভাগীয় ব্যুরো চীফ আশেক মাহমুদ, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি রবিউল ইসলামসহ বিভিন্ন ইউ.পি চেয়ারম্যান কাউন্সিলারসহ বিভিন্ন স্তরের পেশাজীবী মানুষ।
কানায় কানায় অতিথিপূর্ণ অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চেয়ারম্যান জনাব সুলতান উল ফেরদৌস (নম্র চৌধুরী)। উদ্বোধনী বক্তব্যে তিনি বলেন, “দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে যেখানে চারদিকে আমরা অন্ধকার দেখছি এমন একটি মুহূর্তে এই রকম একটি আয়োজন করার জন্য দৈনিক দেশেরপত্রকে ধন্যবাদ জানাই। দেশের সাংঘাতিক এই সংকটকালে এই রকম আয়োজন খুব দরকার ছিল। এর যে কী গুরুত্ব আমরা হয়তো সবাই এখুনি বুঝতে পারব না। কিন্তু আমি মনে করি আজকের এই মহতী অনুষ্ঠানে যারা কোন কারণে উপস্থিত হতে পারেন নি, তারা উপস্থিত থাকলে বুঝতে পারতেন এর গুরুত্ব কতটুকু।”
প্রধান অতিথি দৈনিক দেশেরপত্রের উপদেষ্টা মসীহ উর রহমান বলেন, “জঙ্গিবাদ দমনে বিগত ৪ বছর আগে সরকারকে দেওয়া যামানার এমাম জনাব মোহাম্মদ বায়াজীদ খান পন্নীর জঙ্গিবাদ বর্তমান পৃথিবীর এক ভয়াবহ সমস্যা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। শত দমন নীতি প্রয়োগ করেও এর কোন সমাধান আসছে না। বরং দমন করতে গেলে আরো ফুঁসে উঠছে আলোচিত এই আদর্শটি। যারা জঙ্গিবাদে উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন তারা জীবনকে পরোয়া করেন না। নিজের বুকে বোমা বেঁধে এরা শত্র“ দমনে নেমে পড়ে। সুতরাং ভয় দেখিয়ে তাদের কিছুতেই নির্মূল করা সম্ভব নয়। তাদেরকে নির্মূল করতে প্রয়োজন বিকল্প আদর্শ। কারণ আদর্শ দিয়েই আদর্শকে মোকাবেলা করতে হয়। যারা নিজেরাই আদর্শহীন তাদের দ্বারা জঙ্গিবাদের মত এমন শক্তিশালী আদর্শকে নির্মূল করা সম্ভব নয়। তাদেরকে কোন আদর্শ দিয়ে মোকাবেলা করতে হবে সে আদর্শই ২০০৯ সালে প্রশাসনের সকল স্তরে তুলে ধরেছেন হেযবুত তওহীদের এমাম এমামুযামান জনাব মোহাম্মদ বায়াজীদ খান পন্নী। এখন সরকারের উচিত সে প্রস্তাবকে আমলে নেওয়া। একমাত্র হেযবুত তওহীদই পারবে জঙ্গিবাদের মত এমন একটি ভুল মতবাদের মোকাবেলা করতে। অথচ ভুল করে বর্তমানে একাজে তাদেরকে ব্যবহার করা হচ্ছে যারা নিজেরাই জঙ্গিবাদের সাথে জড়িত, অর্থাৎ অন্ধকে দিয়ে আরেক অন্ধকে পথ দেখানোর ব্যর্থ চেষ্টা।” এ ছাড়াও বর্তমানে তিনি প্রচলিত সিস্টেমের অসারতাগুলো একে একে তুলে ধরে বলেন, “যে সিস্টেম ঘুষ, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতির বিস্তার ঘটায়, যে সিস্টেম সমাজের একজন নিরীহ ছেলেকে সন্ত্রাসী বানায়, যে সিস্টেম একজন সৎ ব্যবসায়ীকে ভেজাল মেশাতে প্রলুব্ধ করে, মানুষকে জড়বাদী ও স্রষ্টাবিমুখ করে সেই সিস্টেমের পরিবর্তন করে আল্লাহর দেওয়া সিস্টেমে পুনরায় ফিরে গিয়ে আমাদের সমাজের যাবতীয় অন্যায় ও অশান্তি দূর করা আজকের মানবতার দাবী।” তিনি সকল গণমাধ্যমকে উদাত্ত আহ্বান জানিয়ে বলেন, “আসুন আমরা একত্রিতভাবে জঙ্গিবাদ দমন ও সিস্টেম পরিবর্তনে কার্যকর ভূমিকা পালন করি।”
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাণীংকৈল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, “সত্য বলা সহজ, সত্য অনেকেই বলতে পারেন। কিন্তু সত্য বলে সত্যের পথে টিকে থাকা অত্যন্ত কঠিন। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে আপনারা সত্য ধারণ করার, প্রকাশ করার যে উদ্যোগ নিয়েছেন এটা নিঃসন্দেহে একটি মহতী উদ্যোগ। কিন্তু এ পথে টিকে থাকতে অনেক পরীক্ষার মুখোমুখী হোতে হতে পারে। সত্যিকার অর্থে মানবরচিত জীবন বিধান মানবজাতিকে শান্তি দিতে পারবে না। একমাত্র আল্লাহর দেওয়া জীবন ব্যবস্থাই মানুষকে শান্তি দিতে পারে।”
অনুষ্ঠানে যামানার এমামের কর্মময় জীবনের উপরে একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শিত হয় এবং সেই সাথে জঙ্গিবাদ দমনে সরকারকে দেওয়া প্রস্তাবনার উপরে নির্মিত আরো একটি ডকুমেন্টারী প্রদর্শন করা হয়।

জনপ্রিয় পোস্টসমূহ