গাজীপুরে হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে আলোচনা সভা

‘সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতা, মাদক প্রভৃতি রোধে করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভা করেছে গাজীপুর জেলা শাখা হেযবুত তওহীদ। গতকাল গাজীপুর চৌরস্তার ‘ভাওয়াল কনভেনশনে’ এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হেযবুত তওহীদের এমাম হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম। হেযবুত তওহীদের গাজীপুর জেলা সভাপতি মো. সেলিম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আন্দোলনটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. আলী হোসেন, প্রধান উপদেষ্টা খাদিজা খাতুন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রুফায়দাহ পন্নী।
সভাপতির শুভেচ্ছা বক্তব্যের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শুরু হয়। এরপরই বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি। হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম তার বক্তব্যে বলেন, প্রকৃত ইসলাম কি? ইসলামের প্রকৃত আকিদা কি? তা আমাদের জানতে হবে, যা ১৪০০ বছর ধরে আমাদেরকে জানতে দেওয়া হয়নি। আল্লাহর রসুল (সা.) একটি অখ- জাতি গঠন করে গিয়েছেন, তিনি দুনিয়া থেকে চলে যাওয়ার পরে তা ভেঙে হাজার হাজার খ-ে বিভক্ত হয়েছে। আর এর জন্য দায়ী ধর্মের সূক্ষ্মাতিসূক্ষ্ম ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণকারী এক শ্রেণির ধর্মব্যবসায়ী। তারা মানুষের ইমানকে হাইজ্যাক করে নিজেদের স্বার্থোদ্ধার করেছে। আজ ইসলামের নামে হাজার হাজার দল হাজার হাজার মত। একেক দলের একেক আকিদা। সাধারণ মানুষ আজ বিভ্রান্ত। তারা কোন দিকে যাবে, তা তারা নির্ণয় করতে পারছেন না। কিন্তু আল্লাহর রসুলের (সা.) এর ইসলাম ছিল একটা, জাতি ছিল এক জাতি। সেই প্রকৃত ইসলাম নিয়ে ১৪০০ বছর পর আবার হেযবুত তওহীদ কাজ করছে।
ইসলামের আকিদা আলোচনায় হেযবুত তওহীদের এমাম আরো বলেন, ইসলামের আকিদা বোঝার আগে বুঝতে হবে আকিদা কী? কোনো বস্তু বা বিষয় সর্ম্পকে কী, কেন, কীভাবে ইত্যাদি জানার নামই হচ্ছে আকিদা। কিন্তু আজ আমরা আমাদের সৃষ্টির আকিদা বা উদ্দেশ্যই ভুলে গেছি। আমাদেরকে সৃষ্টি করা হয়েছিল ¯্রষ্টার ইবাদত করার জন্য, আর আজ সমগ্র মানবজাতি বস্তুবাদী দাজ্জালীয় সভ্যতার আনুগত্য করে যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, যতদিন পর্যন্ত আমরা আমাদের জীবনের সকল ক্ষেত্রে স্রষ্টার সার্বভৌমত্বকে মেনে না নেবো ততদিন সমাজে শান্তি আসবে না। আজ মুসলিম জাতি পৃথিবীর সকল স্থানে যে দুরবস্থায় দিনাতিপাত করছে তার অবসানে স্রষ্টার সার্বভৌমত্বকে প্রতিষ্ঠা ও প্রয়োগ করার কোনো বিকল্প নেই। সভায় উপস্থিত স্থানীয় সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগণ হেযবুত তওহীদের আদর্শ ও বক্তব্যের সাথে তাদের সহমত ব্যক্ত করেন।

লেখাটি শেয়ার করুন আপনার প্রিয়জনের সাথে

Share on email
Email
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on skype
Skype
Share on whatsapp
WhatsApp
জনপ্রিয় পোস্টসমূহ