ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আলেমদের সাথে মতবিনিময়

১৫ অক্টোবর ২০১৬ জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আলেমদের সাথে মতবিনিময় সভা করেছে হেযবুত তওহীদ। রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন হেযবুত তওহীদের এমাম হোসাইন মোহাম্মদ সেলিম। হেযবুত তওহীদের আমির মসীহ উর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় ঢাকাসহ ঢাকার আশেপাশের জেলাগুলো থেকে বিভিন্ন মসজিদের খতিব, ইমাম, মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের আলেমগণ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠান শুরুর পূর্বেই দূর-দূরান্ত থেকে আগত আলেমদের উপস্থিতিতে পূর্ণ হয়ে যায় রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তন, স্থানের সংকুলান না হওয়ায় অনেককে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। জঙ্গিবাদ বিরোধী বিভিন্ন স্লোগান সংবলিত ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড ও ব্যানারে সাজানো হয়েছিল অনুষ্ঠানস্থল। উপস্থিত সকলের চোখে মুখে ফুটে উঠেছিল সত্য ও ন্যায়ের প্রতি অটুট সমর্থনের আভা।
অনুষ্ঠান শুরু হয় পবিত্র কোর’আন তেলাওয়াতের মাধ্যমে। প্রধান আলোচকের বক্তব্যের পূর্বে দেশব্যাপী হেযবুত তওহীদের জঙ্গিবাদ বিরোধী কার্যক্রমের উপর নির্মিত একটি সংক্ষিপ্ত প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। সেখানে দেখা যায় হলি আর্টিজানের জঙ্গি হামলার পর থেকে সারা দেশে প্রায় সবক’টি জেলায় হেযবুত তওহীদের পক্ষ থেকে আড়াইশ’র মতো জঙ্গিবাদ বিরোধী জনসভা, মতবিনিময় সভা, পথ সভা, সেমিনার, সুধী সমাবেশ ও র‌্যালির আয়োজন করা হয়েছে। আরও একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয় যেখানে দেখা যায় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে হেযবুত তওহীদ কর্তৃক আয়োজিত বিভিন্ন সভা-সেমিনার ও র‌্যালির কাভারেজ, যে অনুষ্ঠানগুলোতে মন্ত্রী, সাংসদ, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রী, বিচারপতি, আইনজীবী, প্রশাসনিক কর্মকর্তা, গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব, শিল্পী, সাহিত্যিকসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ দেখা যায়। প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনের পর প্রধান আলোচক এক জ্ঞানগর্ভ বক্তব্য প্রদান করেন। তার বক্তব্যের সময় অনেককেই আবেগআপ্লুত হয়ে অশ্রু মুছতে দেখা যায়। প্রত্যেকেই মন্ত্রমুগ্ধের ন্যায় তার দুই ঘণ্টার দীর্ঘ বক্তব্য শ্রবণ করেন। প্রধান আলোচকের বক্তব্যের পর বেশ কয়েকজন আলেম তাদের মতামত ব্যক্ত করেন, প্রশ্ন করেন, বর্তমানে জাতি যে সঙ্কটে পড়েছে তা থেকে উত্তরণের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ মতবিনিময় করেন।
বাংলাদেশ আজ জঙ্গিবাদ নামক ভয়ানক ষড়যন্ত্রের শিকার। এই ষড়যন্ত্র কেবল দেশের বিরুদ্ধেই নয় এটি পবিত্র ধর্ম ইসলামের বিরুদ্ধেও। এই জঙ্গিবাদ আসলে ইসলাম থেকে সৃষ্টি হয় নি, ইসলামের বিভিন্ন বিষয়ের বিকৃত ব্যাখ্যা দিয়ে জঙ্গিবাদের সৃষ্টি করা হয়েছে এবং এর বিস্তার ঘটানো হচ্ছে। এর ফলে পৃথিবীব্যাপী ইসলামের সুনাম ক্ষুণ্ন হচ্ছে, মুসলিমদেরকে সন্ত্রাসী বলে প্রচার করা হচ্ছে এই জঙ্গিবাদকে ইস্যু করে। কাজেই এই জঙ্গিবাদ ও যাবতীয় সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আজ মুসলিমদেরকে সোচ্চার করে তুলতে হবে। এই কাজে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে আলেমদেরকে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত আলেমদের উদ্দেশে মুখ্য আলোচক হেযবুত তওহীদের এমাম এ কথা বলেন। আলেমগণ দু’হাত তুলে স্বতঃস্ফূর্তভাবে সমর্থন জানান।
জঙ্গিবাদ ছাড়াও সমাজের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে তিনি কথা বলেন। তিনি বলেন, সমগ্র পৃথিবী আজ ভয়াবহ সঙ্কটকাল অতিক্রম করছে। এই মানুষকে মারার জন্য ৪০ হাজার পারমাণবিক বোমা, হাইড্রোজেন বোমা তৈরি করে রেখেছে সাম্রাজ্যবাদী পরাশক্তিধর রাষ্ট্রগুলো। পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে অন্যায়ভাবে যুদ্ধ চাপিয়ে দিয়ে ধ্বংস করে দিচ্ছে মুসলিমদেরকে। তাদের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী আজ পৃথিবীতে ৬ কোটির উপরে উদ্বাস্তু যাদের অধিকাংশই মুসলমান। আর অভ্যন্তরীণ অবস্থা হলো- প্রতিদিন খুন, ধর্ষণ, ছিনতাই, চুরি, ডাকাতি, দুর্নীতি, ঘুষ, সুদ ইত্যাদি অন্যায় লাফিয়ে লাফিয়ে বৃদ্ধি পাচ্ছে। যে মানুষকে আল্লাহ প্রতিনিধি হিসাবে সৃষ্টি করলেন সেই মানুষের আজ এই দুর্গতি, যে মুসলিমদেরকে আল্লাহ দায়িত্ব দিয়েছেন সমগ্র মানবজাতিকে মুক্তি দেওয়ার জন্য সেই জাতির অবস্থা আজ এত করুণ কেন তা ভাবতে হবে। এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য প্রথমেই আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। যাবতীয় অন্যায়ের বিরুদ্ধে, ন্যায়ের পক্ষে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
অনুষ্ঠানে বক্তাগণ বলেন, জঙ্গিবাদ একটি বিকৃত আদর্শ, কাজেই এর বিরুদ্ধে কেবল শক্তি প্রয়োগ করে পূর্ণরূপে সফল হওয়া সম্ভব নয়। এটি নির্মূলের জন্য প্রয়োজন এর বিরুদ্ধে একটি সঠিক আদর্শ তথা ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা মানুষের মাঝে উপস্থাপন করা। জঙ্গিরা কোর’আন-হাদিসের যে সমস্ত অংশ বিকৃতভাবে উপস্থাপন করে সরলপ্রাণ মানুষকে বিপথগামী করে সেই আয়াতগুলোর সঠিক ব্যাখ্যা মানুষের সামনে তুলে ধরতে হবে। এই কাজে আলেমদের গুরুত্ব রয়েছে অনেক বেশি। একজন দেশপ্রেমিক মানুষ হিসাবে এবং একজন মো’মেন হিসাবে ঈমানী কর্তব্যবোধ থেকে দেশের বিরুদ্ধে যাবতীয় ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে।
পৃথিবীব্যাপী চলছে সাম্রাজ্যজ্যবাদী পরাশক্তিদের ষড়যন্ত্র, একটার পর একটা মুসলিম দেশ তারা ধ্বংস করে দিচ্ছে চোখের সামনে, পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে মুসলিমদের উপর অবর্ণনীয় নির্যাতন চলছে প্রতিনিয়ত, এরপর আবার রয়েছে নিজেদের মধ্যে অনৈক্য, হানাহানি, সংঘাত- মুসলিম জাতির এই সঙ্কটকালে নিঃস্বার্থভাবে মানবতার কল্যাণে এগিয়ে আসার জন্য সত্যনিষ্ঠ আলেমদের প্রতি একান্তভাবে আহ্বান জানান হেযবুত তওহীদের এমাম। অনুষ্ঠানে ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীরাও উপস্থিত ছিলেন।

লেখাটি শেয়ার করুন আপনার প্রিয়জনের সাথে

Share on email
Email
Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on skype
Skype
Share on whatsapp
WhatsApp
জনপ্রিয় পোস্টসমূহ